বিশ্বনাথে পৈত্রিক সম্পত্ত্বি নিয়ে প্রবাসী দুই ভাইয়ের দ্বন্ধ : মার্কেটে তালা

0
65

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: সিলেটের বিশ্বনাথে পৈত্রিক সম্পত্ত্বি নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে ভাড়াটিয়ে ব্যবসায়ীদের মালামাল ভেতরে রেখেই মার্কেটে তালা দিয়েছেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী।

শনিবার (২৩ জুন) ব্যবসায়ীদের প্রায় কোটি টাকার মালামাল ভেতরে রেখে বাগিচাবাজারের হাজী আব্দুল করিম মার্কেটে এই তালা দেন উপজেলার সরদার পাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল করিমের পুত্র যুক্তরাজ্য প্রবাসী সাইফুল আহমদ সায়েখ (৪৯)।

এনিয়ে প্রবাসী সাইফুল আহমদ সায়েখ, তার ছোট ভাই যুক্তরাজ্য প্রবাসী শায়েস্তা আহমদ, মার্কেটের ব্যবসায়ীরা ও বাজার কমিটিসহ চারটি পক্ষ রয়েছেন মুখোমুখি অবস্থানে। যেকোনো সময় তাদের মধ্যে বড় ধরণের সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী।

জানা যায়, পৈত্রিক সম্পত্ত্বি নিয়ে সাইফুল আহমদ সায়েখ, তার ভাই শায়েস্তা আহমদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। এনিয়ে তাদের কোর্টে মামলা মোকদ্দমাও চলছে। বিরোধপূর্ণ সম্পদের অংশ হিসেবে বাগিছা বাজারে ‘হাজী আব্দুল করিম সুপার মার্কেট’ নামে তাদের একটি মার্কেট রয়েছে।

কয়েক বছর ধরে শায়েস্তা আহমদের কাছ থেকে লিখিত চুক্তিনামার মাধ্যমে ওই মার্কেটে ভাড়াটিয়া হিসেবে ব্যবসা বাণিজ্য করে আসছেন অকিল দে, আলা উদ্দিন, নিখিল দে, অনিতা টেইলার, আজির সাজঘর ও সমশের আলী নামের ৬জন ব্যবসায়ী। এসকল ব্যবসায়ীরা শায়েস্তা আহমদের সাথে চুক্তিনামার মাধ্যমে কেয়ারটেকারের কাছে প্রতিমাসে ভাড়া পরিশোধ করে আসছেন।

সম্প্রতি শায়েস্তা আহমদ’র ভাই সাইফুল আহমদ সায়েখ দেশে এসে দোকান ঘর ছাড়ার জন্য ভাড়াটিয়াদের উকিল নোটিশ করেন। এর জবাবও ব্যবসায়ীরা কোর্টে গিয়ে প্রদান করেন। কিন্তু শায়েস্তা মিয়া প্রবাসে থাকার সুযোগে সায়েখ আহমদ মার্কেটে তালা দেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

তবে ব্যবসায়ীদের অভিযোগ স্থানীয় সরকারদলীয় নেতা ও পুলিশি সহযোগীতায় মার্কেটটি তালাবদ্ধ করে দখলে নিয়েছেন প্রবাসী সাইফুল আহমদ সায়েখ। এরপর শনিবার রাতে বাজার কমিটি’সহ থানায় গেলে কোনো সুরাহা হয়নি। এনিয়ে রোববার স্থানীয়বাজারে এক প্রতিবার সভা করেছেন বাজার কমিটির নেতৃবৃন্দ।

মার্কেটে তালা দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে সাইফুল আহমদ সায়েখ বলেন, পৈত্রিক সম্পত্ত্বি হিসেবে ওই মার্কেটের মালিক আমরা ৬ ভাই-বোন। শায়েস্তা আহমদ একা সম্পূর্ণ মাকেটের মালিক নন। ব্যবসায়ীদেরকে ভাড়ার টাকা আমাদের কাছে দেওয়ার জন্য একাধিক বার বলার পরও তারা আমাদের কথা মানতে নারাজ।

মার্কেটের ব্যবসায়ীরা তাকে ভাড়া দিতে অস্বীকার করায় তিনি মার্কেটে তালা দিয়েছেন বলে জানান। শায়েস্তা মিয়ার পক্ষের আবু মিয়া ও আব্দুল মতিন নামের দু’জন বলেন, মার্কেটটি দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে শায়েস্তা আহমদের অধিনে রয়েছে। ব্যবসায়ীরাও শায়েস্তা আহমদকে ভাড়া দিয়ে আসছেন।

সরকারদলীয় নেতা ও পুলিশি সহযোগীতায় অস্ত্র’সহ ভাড়াটিয়া লোজকজন নিয়ে মার্কেটটি তালাবদ্ধ করে দখলে নিয়েছেন প্রবাসী সাইফুল আহমদ সায়েখ। পুলিশের সহযোগীতায় মার্কেট দখলের অভিযোগ অস্বীকার করে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামসুদ্দোহা পিপিএম বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, মার্কেট দখলের জন্য নয়, মিথ্যা সংঘর্ষের খবর দিয়ে পুলিশকে সেখানে নেওয়া হয়েছিল।

ভাইদের দ্বন্দের বিষয়টি আপোষে মিমাংশা করার অনেক চেষ্ঠা করা হয়েছে, তবে সম্ভব হয়নি। এদিকে, মার্কেটে তালা দেওয়ার প্রতিবাদে রোববার (২৪ জুন) বিকেলে বাগিছা বাজার বণিক কল্যাণ সমিতির উদ্যোগে এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় বক্তারা মার্কেটে থাকা ব্যবসায়ীদের ক্ষতিপূরণ’সহ দ্রুত মার্কেটের তালা খুলে দেওয়ার পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য প্রশাসনের সু-দৃষ্ঠি কামনা করেছেন।

(Visited 93 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here